বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি তছনছ, কলেজ বিল্ডিং ভাংচুর এর প্রতিবাদে ছাত্র ছাত্রীদের মানববন্ধন  

সারাদেশ প্রতিবেদক ॥

গত ১০-ই জানুয়ারীতে উত্তরায় ঢাকা নর্দান সিটি কলেজ ক্যাম্পাসে ঘটে যাওয়া ভাংচূর এবং লুটপাট করার ঘটনায়, উক্ত কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিবাবকরা এক মানবন্ধনের সাথে মিছিলের আয়োজন করে।

তথ্যমতে জানা যায়, কলেজ ভাংচূর, লুটপাট শিক্ষকদের উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরীর বিপরীতে ডেকে নিয়ে হয়রানি মূলক প্রশ্ন করা এবং প্রায় ২০০ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষা জীবণ অনিশ্চিত হয়ে পড়ায় তারা কলেজ গেইটে এই মানববন্ধন করে ।

মানববন্ধনের একটি পর্যায়ে দেখা যায় ভাংচুর করা আসবাবপত্র ও কাগজ পত্রের ভেতর থেকে কয়েকজন ছাত্র নিজেদের কিছু খুজে ফিরতেই বেড়িয়ে আসে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ভাংচূর হওয়া ছবি দুইটি। তখন কিছু ছাত্র-ছাত্রী উত্তেজিত হয়ে সেই ছবি এনে মানববন্ধনে হাজির করে। সহসা মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়। উল্লেখ্য ছবিগুলো বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীর ছবি যে ভাবে ভাংচুর করা হয়েছে তা দেখে আক্রোশ প্রকাশিত হয়েছে বলে মনে হয়।

পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে থানা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক কর্মকর্তা সাবিকুন নাহার উপস্থিত ছিলেন। তাদের ভাষ্য এ ভাবে দুই শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষা জীবণ ব্যহত হতে পারে না। পরিস্থিতি জানিয়ে দেওয়া হয়ে উপড় মহলে বলে তারা জানান।

অন্যদিকে উপস্থিত শিক্ষকদের নিকট জানতে চাওয়া হয় থানায় কেন মিমাংসা করতে পারলেন না।এমন প্রশ্নে তারা জানান, “প্রথমে আমরা মামলা করতে চাইলে থানা তা নেয়নি। পরবর্তিতে আমাদের সাধারণ ডায়েরী করতে বলা হয়। সেই ডায়েরি নাকি নজরুল নামের কোন পুলিশ কর্মকর্তা লিখে দেন এবং তাদের স্বাক্ষর করতে বলেন।এমনটা সেই সময় শিক্ষকরা আমাদের প্রতিনিধিকে জানান।

উপড়ের সকল বিস্তারিত অবস্থা জানতে আমরা যোগাযোগ করি উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি তপন চন্দ্র সাহার সাথে। তিনি জানান, উক্ত স্থানে আদালতের আদেশ রয়েছে। কিন্তু কি আদেশ রয়েছে তা তিনি জানাননি। বঙ্গবন্ধু এবং প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচূর নিয়ে প্রশ্ন করলে একটু ভিন্ন স্বরে তিনি জানান আমরা তদন্তে গিয়ে পূর্বে তা দেখিনি।

News Desk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

ইউনূসকে তলব করেছে শ্রম আদালত

Mon Jan 13 , 2020
আদালত প্রতিবেদক ॥ ফৌজদারি মামলায় নোবেলজয়ী মুহাম্মদ ইউনূসকে গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান হিসেবে তলব করেছে ঢাকার শ্রম আদালত। কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরির্দশন অধিদপ্তরের দায়ের করা মামলাটিতে ইউনূসসহ গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চারজনকে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হতে সমন জারির নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। সোমবার ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলাম এই আদেশ দেন […]