করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জনশূন্য রাজধানী , গণপরিবহনহীন সড়ক ও সেনাবাহিনী টহলে

নিজেস্ব সংবাদদাতা – সারাদেশের ন্যায় সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি পালনের সাথে সাথে নাগরিকদের নিজ আবাসে আবদ্ধ থাকার নির্দেশনা পালন হচ্ছে রাজধানীতেও।

আমাদের প্রতিনিধি জানান, ২৬ শে মার্চ থেকে ৪ ঠা এপ্লিল পর্যন্ত নাগরিকদের বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বায়রে বেড়োনোর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে প্রশাসন,পুলিশ ও অন্যান্য সংস্থার সাথে মাঠে আছে এখন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী । তারা মূলত বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা করবে এবং আইন মানতে মাধ্য করবে। এই ব্যপারে সূত্র জানায় সরকার একটি নির্বাহী আদেশ জারি করেছে। রাস্তায় বা অন্য কোথাও জনসমাগম বা একের অধিক লোক চলাচল করা যাবে না। যাদের বিশেষ প্রয়োজন আছে তারা শুধু বেড় হতে পারবেন। নিত্য পন্যের দোকান খোলা থাকলেও তাতে ক্রেতার ভীড় নেই বললেই চলে।সড়ক এবং সড়কগুলোতে গণপরিবহন নেই বললেই চলে। সাধারণছুটি ঘোষিত হবার সাথে সাথেই শহর থেকে মানুষেরা ছুটে গেছে গ্রামে। ফলে গ্রামের মানুষদের স্বাস্থ্য ঝুকি বেড়েছে বহুগুনে। গত কয়েকদিন থেকেই যেমন গ্রামের হাটবাজার বন্ধ হয়ে গেছে। লোক চলাচল নেই। রাজধানী ঢাকা এক বিরান চাদরে নিজেকে ঢেকে নিয়েছে। চিরচেনা ঢাকা মহামারী করোনাভাইরাসের ভয়ে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছে। একেবারেই যাদের কোন উপায় নেই তারাই কেউ কেউ বায়রে বেড়িয়েছে। সেনাবাহিনীর গাড়িগুলো মাঝে মাঝেই টহল দিতে দেখা যায়।

মূলত বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা করতে সামরিক বাহিনী অবস্থান নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *