আজ শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন

সারাদেশ ডেস্ক ॥ 

তৃতীয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিশংসিত হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইতোমধ্যে মার্কিন সংসদের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে তাকে অভিশংসনের প্রস্তাব পাস হয়েছে। চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য অভিশংসন প্রস্তাব আগামী মাসে সিনেটে উত্থাপন করা হবে।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) দু’টি অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে ভোটাভুটি হয়। প্রথম অভিযোগ, প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি তার ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। দ্বিতীয় অভিযোগ, কংগ্রেসের কাজে বাধা সৃষ্টি করেছেন তিনি।

দু’টি অভিযোগের ক্ষেত্রেই অভিশংসনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট পড়েছে। প্রথম অভিযোগে অভিশংসনের পক্ষে ভোট পড়েছে ২৩০টি এবং বিপক্ষে পড়েছে ১৯৭টি। দ্বিতীয় অভিযোগের ক্ষেত্রে পক্ষে পড়েছে ২২৯টি ভোট এবং বিপক্ষে ১৯৮টি ভোট।

তবে, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত কোনো প্রেসিডেন্টকে অভিসংশনের মাধ্যমে অপসারণ করা হয়নি। ১৮৬৮ সালে প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে অভিশংসিত হন অ্যান্ড্রু জনসন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়াই তৎকালীন সেক্রেটারি অব ওয়ার এডউয়িন স্ট্যানটনকে চাকরিচ্যুত করেন তিনি। অভিশংসনের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে তাকে অপসারণ করতে সিনেটের দুই তৃতীয়াংশ ভোট প্রয়োজন ছিল। সিনেটে ডেমোক্র্যাট এ নেতার অভিশংসনের পক্ষে পড়েছিল ৩৬টি ভোট, বিপক্ষে ১৯টি। অভিশংসনের পক্ষে মাত্র একটি ভোট কম পড়ায় প্রেসিডেন্ট পদে বহাল থাকেন তিনি।

১৯৯৮ সালে দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট হিসেবে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে অভিশংসিত হন বিল ক্লিনটন। ডেমোক্র্যাট এ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করেছিলেন এবং হোয়াইট হাউস ইন্টার্ন মনিকা লিউনেস্কির সঙ্গে সম্পর্ক জড়ানোর বিষয়টি গোপন করে কংগ্রেসের কাজে বাধা সৃষ্টি করেছিলেন। সিনেটে দুই তৃতীয়াংশের কম ভোট পড়ায় প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরতে হয়নি ক্লিনটনকে।

এছাড়া, ১৯৭৪ সালে ‘ওয়াটারগেট স্ক্যান্ডাল’ এর কারণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও রিপাবলিক নেতা রিচার্ড নিক্সনের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হয়। কিন্তু ওই বছরই পদত্যাগ করেন নিক্সন, তাই তার অভিশংসন প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়।

বুধবার বিকেলে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে অভিশংসনের পক্ষে ভোটাভুটির সময় নির্বাচনী প্রচারণার কাজে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য মিশিগানে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে এক বক্তব্যে তিনি বলেন, কোনো অপরাধ না করার পরও তারা আমাকে অভিশংসিত করছে, পৃথিবীর ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম।

জানুয়ারিতে ট্রাম্পকে অভিশংসনের শুনানি শুরু হবে সিনেটে। তবে, ধারণা করা হচ্ছে, রিপাবলিক নিয়ন্ত্রিত সিনেটে অভিশংসনের মাধ্যমে অপসারণ করা সম্ভব হবে না তাকে। এখন দেখার বিষয়, কী ঘটতে যাচ্ছে ট্রাম্পের ভাগ্যে।

 
 
 

আরও পড়ুন

২০২০ সালে যে ১০টি দক্ষতা তরুণদের থাকা চাই

২০২০ সালে যে ১০টি দক্ষতা তরুণদের থাকা চাই

উত্তরায় শিশু হত্যার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

ইংল্যান্ডে চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা পাঁচে ‘ছিটমহল’

আবার কেউ অস্ত্রের ঝনঝনানি করতে চাইলে সম্মিলিতভাবে তাদের প্রতিহত করা হবে : ডিআইজি মোজাম্মেল

চোখে মুখে স্বপ্ন,ইচ্ছে বড় অভিনেতা হওয়া

‘খালেদা জিয়াকে বলি, আসুন দেখে যান পদ্মা সেতু নির্মাণ হয়েছে কিনা’

আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেষ্টিভ্যালে পরিচালক এইচ আর হাবিব এর ‘ছিটমহল’

পদোন্নতিপ্রাপ্ত ডিআইজিদের প্রতি আইজিপি

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ঐতিহাসিক তাৎপর্য বহন করে,,,, কচি

রাজধানী উত্তরায় ১নং ওয়ার্ডের উত্তরা পশ্চিম থানা যুবলীগের আয়োজনে দোয়া মাহফিল।

নামমাত্র মূল্যে দেশেই হচ্ছে কিডনি প্রতিস্থাপন

শহীদ মিনারে মুহিতের কফিনে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা

২০২০ সালে যে ১০টি দক্ষতা তরুণদের থাকা চাই

২০২০ সালে যে ১০টি দক্ষতা তরুণদের থাকা চাই

উত্তরায় শিশু হত্যার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

পঞ্চগড়ে পুলিশের অভিযানে ইয়াবা সহ ব্যবসায়ী আটক

বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের ১৯ জন কর্মকর্তাকে পুলিশের অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) পদে পদোন্নতি।

পঞ্চগড়ে ব্রিক ফিল্ডে ঢুকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, থানায় অভিযোগ –

চলছে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় মাদকের বিরুদ্ধে সাড়াশি অভিযান।

মাদকের বিরুদ্ধে সাড়াঁশি অভিযান অব্যাহত পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায়

পঞ্চগড়ের মাদক রুট বন্ধে সফল অভিযান চলছে বোদা উপজেলায়

উওরখানে সরকার নিষিদ্ধ ঘোষিত পলিথিন ফ্যাক্টরিতে সয়লাব

বাংলাদেশী সিনেমার সালতামামি আশির দশক

বিমানবন্দর ৩ কেজি গাজা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

গাজা উদ্ধার, গাজার ব্যাপারী ( পাইকার) গ্রেফতার

 

Top
ব্রেকিং নিউজ :
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com